দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমেই দুই উইকেট খোয়ালো শ্রীলঙ্কা

Publish: 1 week ago ( 1309)

অনলাইন ডেস্ক

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা।  তৃতীয় দিনের শেষ বেলায় ব্যাট হাতে নামতেই ২ উইকেট হারিয়ে ফেলে লঙ্কানরা। ওপেনার লাহিরু থিরিমান্নে ও ওয়ান ডাউনে নামা ওশাদা ফার্নান্ডোকে হারিয়ে দিন শেষে মাত্র ১৭ রান তুলেছে তারা। কিন্তু তারপরও ২৫৯ রানে এগিয়ে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। যদিও স্বাগতিকরা কাজের কাজটি প্রথম ইনিংসেই করে রেখেছে। ৭ উইকেটে ৩৯৩ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। পরে প্রবীণ জয়াবিক্রমের ঘূর্ণি জাদুতে প্রতিপক্ষ বাংলাদেশকে প্রথম ইনিংসে ২৫১ রানে গুটিয়ে দেয় লঙ্কানরা। ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট ইনিংসেই ৩২ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৭ মেডেন ও ৯২ রান দিয়ে ৬টি উইকেট তুলে নিয়েছেন প্রবীণ জয়াবিক্রম। এদিকে শ্রীলঙ্কার এখন যে লিড। তাতে চতুর্থ দিনে বাড়তি একশ রান যোগ করলেই বাংলাদেশের জন্য তা চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়াবে। তখন হার এড়ানোই কঠিন হয়ে পড়বে টাইগারদের জন্য। কেননা উইকেট এখন বোলিং সহায়ক হয়ে পড়েছে। চতুর্থ ইনিংসে এই উইকেটে ৩৫০ রান করা সংগ্রহ করাটা এখন অনেকটাই অসম্ভব। এর আগে শ্রীলঙ্কার রান পাহাড়ের জবাবে শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল বাংলাদেশ। তবে এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় দলটি। প্রথম টেস্টে নব্বইয়ের ঘরে আউট হওয়া তামিম ইকবাল এদিনও ফিরেছেন নড়বড়ে নব্বইয়ে। ক্যান্ডির পাল্লেকেলের ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে মাঠে নামে দু’দল। যেখানে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাইফ হাসান মিলে ৯৮ রানের জুটি গড়েন। প্রবীণ জয়াবিক্রমের বলে সাইফ ২৫ করে ফেরেন। তবে প্রথম টেস্টের সেঞ্চুরিয়ান নাজমুল হোসেন শান্ত রমেশ মেন্ডিসের বলে শূন্য রানে আউট হন। কিন্তু উইকেটে অবিচল থাকেন তামিম। তৃতীয় উইকেট জুটিতে তিনি অধিনায়ক মুমিনুল হকের সঙ্গে ৫২ রান তোলেন। তবে নড়বড়ে নব্বইয়ে ফের প্যাভিলিয়নে ফেরেন এই বাঁহাতি তারকা ওপেনার। জয়াবিক্রমের বলে থিরিমান্নেকে ক্যাচ দেওয়ার আগে ১৫০ বলে ১২টি চারে ৯২ রান করেন। এরপর ছোট ছোট জুটি গড়ে ফিরে যান মুমিনুল ও মুশফিকুর রহিমও। মুমিনুল ১০৪ বলে ৭টি চারে ৪৯ রান করে মেন্ডিসের বলে মাঠ ছাড়েন। ৬২ বলে ৪০ করেন মুশফিক। আর জয়াবিক্রমের চতুর্থ শিকার হয়ে আউট হন লিটন দাশ (৮)। এছাড়া মেহেদী হাসান মিরাজ ১৬ এবং তাইজুল ইসলাম ৯ রান করেন। শেষ তিনজনেরও কেউই রানের খাতা খুলতে পারেননি। যদিও নটআউট ছিলেন রাহী।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ১ম ইনিংসে ১৫৯.২ ওভারে ৪৯৩/৭ ডিক্লে. দ্বিতীয় ইনিংস- ৭ ওভারে ১৭/২ (করুণারত্নে ১৩*, ম্যাথুজ ১*);

বাংলাদেশ: ১ম ইনিংসে ৮৩ ওভারে ২৫১/১০

 

Comments: