শেরপুরে সর্বহারা পার্টির নামে পোস্টারিং, এলাকায় আতঙ্ক

বগুড়ার শেরপুর উপজেলার দুর্গম এলাকায় পুর্ববাংলা সর্বহারা পার্টির নামে পোস্টারিং করা হয়েছে। এতে ওই এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে আতংক দেখা দিয়েছে। সোমবার (২৬ এপ্রিল) শেরপুর উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের বিশ্বা বাজারে এই সকল পোস্টার দেখা যায়। স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকালে তারা বাজারে আসলে বিভিন্ন দোকানের দেয়াল এবং বাজার সংলগ্ন বিশ্বা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের দেয়ালে পোস্টারিং দেখতে পায়। রবিবার রাতে লাগানো লাল রং এর কাগজে হাতে লেখা এসব পোস্টারে লেখা রয়েছে পুর্ববাংলা সর্বহারা পার্টিতে যোগ দিন, এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে, জিনিসপত্রের দাম কমাতে হবে, পুলিশের হয়রানি মানি না, মানব না।বিশ্বা গ্রামের রইচ উদ্দিন ও মকবুল হোসেন বলেন, প্রায় ৫ বছর আগে তাদের নামে সহ এই গ্রামের ৪ জনের বাড়িতে চিঠি দিয়ে হত্যার হুমকী দেয়া হয়েছিল সর্বহারা পার্টির নামে। চারজনের মধ্যে বিশ্বা বাজারের নরোত্তম নামে এক পল্লী চিকিৎসককে চিঠির মধ্যে রাইফেলের গুলি দিয়ে হত্যার হুমকী দেয়া হয়েছিল। গ্রামের বাসিন্দারা বলেন প্রতি বছরই ধানকাটা মৌসুমে বিশ্বা বাজারে সর্বহারা পার্টির নামে পোস্টারিং করা হয়। তবে কোন বাড়িতে ডাকাতি হয়নি। তারপরেও এলকার ধর্নাঢ্য ব্যবসায়ীরা দিনে গ্রামে থাকলেও সন্ধ্যার পর ১৫ কিলোমিটার দুরে শেরপুর উপজেলা সদরে ভাড়া বাড়িতে রাত যাপন করেন। স্থানীয়রা আরো বলেন, সর্বহারা পার্টির লোকজনকে গ্রামের কেউ চাঁদা দিলেও তা গোপন রাখা হয়। তবে গত কয়েক বছরে বিশ্বা গ্রামে গরু চুরি বেড়ে গেছে। তাদের ধারনা সর্বহারা পার্টির নামে যারা পোস্টারিং করে তারাই গরু চুরির সাথে জড়িত। এ ব্যাপারে বিশ্ব বাজারে সর্বহারাদের পোস্টারিং এর সত্যতা স্বীকার করে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। যারা এ ধরনের কার্যক্রম করছে তাদের শনাক্ত করে প্রয়েজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। শেরপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. গাজিউর রহমান বলেন, যারা সর্বহারা পার্টির নামে পোস্টারিং করেছে তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ কঠোর অবস্থানে যাবে।

 

Comments: