প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাহিরে বের হলেই জরিমানা।

লকডাউনের তৃতীয় দিন আজ। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘড় থেকে বাহিরে বের হলেই জরিমানা করছে পুলিশের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ধামইরহাট থানা পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কঠোর লকডাউন কার্যকর করতে সরকার যে নির্দেশনা দিয়েছে তা বাস্তবায়নে এবার কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে। 'মুভমেন্ট পাস' ছাড়া কাউকে বাড়ির বাহিরে আসতে দেওয়া হবেনা। প্রথম দিনের মতো তৃতীয় দিনেও নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলায় চলছে কড়াকড়ি লকডাউন। সকাল থেকেই যাত্রী বহনে ব্যাটারী চালিত ভ্যান অটো ও ব্যক্তিগত ভাবে চলাচলের জন্য মোটরসাইকেল রাস্তায় সীমিত পরিসরে দেখা গেছে। তবে জরুরী পণ্য পরিহনের জন্য ওষুধ, পেঁয়াজ, গ্যাস সিলিন্ডার, মুদি পণ্যের গাড়ি জনগণের সার্থে চলাচল করতে দেখা গেছে। অন্যদিকে নিত্য প্রয়োজনীয় কাঁচাবাজার, মুদির দোকান, মুরগীর দোকান, সার ও বীজের দোকান, তেলের পাম্পসহ ওষুধের দোকান খোলা রাখা হয়েছে। এসব দোকানে প্রয়োজনীয় পন্য কিনতে আসা ক্রেতারা নিরাপদ দুরত্ব বা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে  দেখা গেছে। তবে বাজারে কিছু কাপড়ের (গার্মেন্টস) দোকানের শাটারের অর্ধেক ঝাপ খোলা রেখে ব্যাবসা করতে দেখা গেছে। দুপুর বারোটার কিছু আগে থানা গেটের সামনে  পুলিশ যাত্রী বহনে ব্যাটারী চালিত ভ্যান, অটো ও মোটরসাইকেলের যাত্রীদের প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রসহ ঘর থেকে বের হওয়ার কারণ জানতে তল্লাশি করতে দেখা গেছে। এ সময় অতি জরুরি প্রয়োজন ব্যতিত যারা ঘর থেকে বাড়ির বাহিরে বের হয়েছেন, তাদের আনেককেই জরিমানা গুনতে হয়েছে। অফিসার ইনচার্জ আবদুল মমিন জানান, জনগণ আগের চাইতে অনেক সচেতন হয়েছে। বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কেউই ঘর থেকে বের হচ্ছেনা। কঠোর লকডাউন কার্যকর করতে আমাদের পুলিশ সদস্য সবসময় মাঠে কাজ করছে। ’মুভমেন্ট পাস’ ছাড়া কাউকে বাড়ির বাইরে আসতে দেওয়া হবেনা। সবাই ঘরে থাকুন সুস্থ্য থাকুন। 

 

Comments: