নেই সংযোগ সড়ক সেতু পারাপারে বিড়ম্বনা চরমে

নওগাঁর আত্রাইয়ে রতন ডারা খালের উপর দাঁড়িয়ে আছে সংযোগ সড়ক বিহীন একটি সেতু। সেতুটির সংযোগ সড়ক না থাকায় বাঁশের চাটার সাঁকোর উপর দিয়ে পারাপার হতে হয়। সেতুটি পারাপার হতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয় আশেপাশের হাজার হাজারো জনগণের। বছরের পর বছর ধরে এমন পরিস্থিতি চলতে থাকলেও যেন দেখার যেন কেও নেই। জানা গেছে, উপজেলার সাহাগোলা ইউনিয়নের তারাটিয়া ছোটডাঙ্গা বাজার সংলগ্ন রতন ডারা খালের উপর গত কয়েক বছর পূর্বে নির্মাণ করা হয় একটি সেতু। নির্মাণের কয়েক বছর পেরিয়ে গেলেও সেতুটির উভয় পার্শ্বে সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা হয়নি। স্থানীয়রা খালের উপর সেতুটিতে সংযোগ সড়ক হিসেবে বাঁশের চাটার সাঁকো বানিয়ে এর উপর দিয়ে পারাপার হয়। সংযোগ সড়ক না থাকায় সেতুটি পারাপারে উচলী কাশিমপুর, পার-কৃষ্টপুর, ঝনঝনিয়া, কালিগ্রাম, সুবর্ণকুন্ড, তারটিয়া, মির্জাপুর, মাগুড়াপাড়া, হাতিয়াপাড়া, চাপড়া, তারাটিয়া ছোটডাঙ্গা, তারাটিয়া বড়ডাঙ্গা, কয়সাসহ বিভিন্ন গ্রামের মানুষের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়। স্থানীয় ব্যবসায়ী মো. বেলাল হোসেন বলেন, সেতুটির সংযোগ সড়ক না থাকায় পারাপার হতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়। বিশেষ করে সাইকেল, মোটর সাইকেল ও মাল বোঝাই ভ্যান গাড়ী ঠেলা দিয়ে এর উপর দিয়ে পার করতে হয়। সংযোগ সড়কবিহীন সরু এই সেতুটি পারাপারে অনেক সময় দূঘটনার শিকার হতে হয়। এ বিষয়ে ভবানীপুর জি.এস. উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মাহাবুবুর রহমান বলেন, এই সেতুটি খুবই জনগুরুত্বপূর্ণ। সংযোগ সড়ক না থাকায় সেতুটি দিয়ে শিক্ষার্থীসহ জনসাধারণের চলাচল করা খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। অতি দ্রুত উক্ত সেতুটির সংযোগ সড়ক নির্মাণ করা প্রয়োজন। এ বিষয়ে সাহাগোলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ শফিকুল ইসলাম বাবু বলেন, বিষয়টি উর্ধ্বতন মহলকে জানানো হয়েছে। কর্তৃপক্ষ জনগণের দূর্ভোগের কথা বিবেচনা করে অতিদ্রুত বিষয়টি সমাধান করবেন এমটিই প্রত্যাশা করেন তিনি। উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ পারভেজ নেওয়াজ বলেন, ঝুঁকি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ এ সেতু দিয়ে প্রতিনিয়ত হাজারো জনগণ চলাফেরা করছে। এটি দ্রুত সমাধান করা হবে বলেও জানান তিনি।

 

Comments: