গোবিন্দগঞ্জে বিধবাকে গণধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ মামলায় আটক ১,আদালতে স্বীকারোক্তি

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে রাতের আঁধারে অপহরণপ‚র্বক এক বিধবাকে (৩৫) পালাক্রমে ধর্ষণ অভিযোগে করা মামলায় হোসাইন শেখ (২৭) নামের এক আসামীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। সে হাউসীপাড়ার মোস্তাক আহমেদ এর পুত্র। সোমবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে গোবিন্দগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, আমলী আদালত গোবিন্দগঞ্জে (চৌকি) আসামীকে সোপর্দ করে।এর আগে ৪ এপ্রিল দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে আসামী হোসাইনকে শিবগঞ্জের ময়দানহাট্টা ইউনিয়নের হাটগামী গ্রামে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে বৈরাগীর হাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ মিলন চ্যাটার্জী । থানা স‚ত্রে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, গোবিন্দগঞ্জ থানায় ১ এপ্রিল মামলা নং-০২ দায়ের করে ধর্ষণের শিকার বিধবা। মামলায় অন্তর্ভ‚ক্ত আসামীদের মধ্যে দুইজন হাউসি পাড়া গ্রামের শুকুর আলীর পুত্র বাবু মিয়া(৩০) ও গিয়াস উদ্দিনের পুত্র শফিকুল ইসলাম(২৫)উল্লেখ্য করেন।এবং অজ্ঞাত আরো তিনজনকে আসামী করা হয়।পরে বিভিন্ন সূত্রে প্রাপ্ত তর্থের ভিত্তিতে আসামীদের মধ্যে আটক একজন হোসাইন ও আব্দুল মান্নানের পুত্র মতিয়ার রহমান(২৮) ও ভেলামারী গ্রামের বাকী প্রধানের পুত্র সোহাগ (৩০)বলে জানা যায়।
এদিকে বৈরাগীর হাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের অফিসার ইনচার্জ ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মিলন চ্যাটার্জী জানান, আটক আসামী হোসাইনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। সে ঘটনার সাথে জড়িত বলে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে। বাকী পলাতক আসামীদের গ্রেফতারে জোর তৎপরতা চলছে।
উল্লেখ্য,গত ৩১ মার্চ উপজেলার সাপমারা ইউনিয়নের কৌচাকৃষ্ণপুর গ্রামের জামাত আলীর কন্যা তিন সন্তানের জননী(ভিকটিক), দুই বছর আগে স্বামী আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুর পর থেকে ভিকটিম তার বাবার বাড়িতে অবস্থান করত। ঘটনার রাতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে ঘরের বাহির হলে  লম্পটরা হঠাৎ তাকে ঝাপটে ধরে অপহরণ করে বাড়ীর অদুরে ঝোঁপে নিয়ে তারা পালাক্রমে র্ধষন ও  র্ধষনের সময় ভিডিও ধারণেন ঘটনাটি ঘটে।


 

Comments: