জবি ও ইবির মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ও ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) মধ্যে আগামী তিন বছরের জন্য গবেষণা সহযোগিতা সংক্রান্ত সমঝোতা স্মারক চুক্তি সই হয়েছে। 

 

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ইবির পক্ষে কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আলমগীর হোসেন ভুঁইয়া এবং জবির পক্ষে কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ চুক্তিটি সই করেন। এই চুক্তির আওতায় যৌথ গবেষণা, প্রকাশনা এবং অন্যান্য কার্যক্রম; আর্থ-সামাজিক অর্জন, উপজাতীয় ও অন্যান্য পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্তিমূলক বৃদ্ধি সম্পর্কিত বিষয়গুলোতে যৌথভাবে একাডেমিক ও গবেষণা কাজ করা। ল্যাবরেটরি, একাডেমিক ও গবেষণার সুবিধার পাশাপাশি অবকাঠামোগত সহায়তা প্রদান, একাডেমিক ও গবেষণা বৃদ্ধির জন্য অপরপক্ষকে পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান, সম্ভাব্য পারস্পরিক একাডেমিক ও গবেষণার আগ্রহের ক্ষেত্রগুলোকে সনাক্তকরণ, শিক্ষা ও গবেষণা এবং সুনির্দিষ্ট ক্ষেত্রগুলোতে শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং প্রশাসকদের পরিদর্শন ও অনানুষ্ঠানিক বিনিময়, একাডেমিক তথ্য ও উপকরণ বিনিময়, যৌথ গবেষণা, ওয়ার্কশপ, কনফারেন্স এবং সহযোগিতামূলক কার্যক্রম গ্রহণ, অন্যান্য বিষয়ে বিনিময় ও পারস্পরিক সহযোগিতামূলক কার্যক্রমসহ বিভিন্ন সুবিধা লাভ করবে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীরা। 

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক শেখ আব্দুস সালাম, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক,  কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. রইছ উদদীন, বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. গোলাম মোস্তফা, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন, আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এস. এম. মাসুম বিল্লাহ, লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. মনিরুজ্জামান খন্দকার, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান, পরিচালক (জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা) অধ্যাপক চঞ্চল কুমার বোস, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল, পরিচালক (ছাত্র-কল্যাণ) অধ্যাপক ড. মো. আইনুল ইসলাম, পরিচালক (অর্থ ও হিসাব) অধ্যাপক ড. কাজী নাসির উদ্দিন, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. একেএম লুৎফর রহমান।

 

এছাড়াও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে রেজিস্ট্রার এইচ এম আলী হাসান ও উপ-রেজিস্ট্রার চন্দন কুমার দাস এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান ও পরিচালক (গবেষণা) অধ্যাপক ড. পরিমল বালা সাক্ষি হিসেবে চুক্তিতে সই করেন।

Comments: