আমাদের বিমান বাহিনী অত্যন্ত চৌকস-দক্ষ : প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ বিমান বাহিনী অত্যন্ত চৌকস ও দক্ষ বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  তিনি বলেন, আমাদের বিমান বাহিনী অত্যন্ত চৌকস দক্ষ বিমান বাহিনী। সঙ্গে আমাদের মেয়েদেরও বিমানবাহিনীতে যুক্ত করছি।

 

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) যশোর বিমানবাহিনীর কুচকাওয়াজে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, শান্তিরক্ষা মিশনে আমাদের বিমান বাহিনী অত্যন্ত চমৎকার ভূমিকা পালন করছে। আমরা সত্যিই সে জন্য গর্বিত। সরকারপ্রধান বলেন, জাতির পিতা দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব রক্ষার জন্য তিনি আমাদের প্রতিরক্ষা নীতিমালা করে গিয়েছিলেন, আমরা তা বাস্তবায়ন করছি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের বিমানবাহিনীর একটি গৌরব উজ্জ্বল অধ্যায় রয়েছে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের। জাতির পিতাকে হত্যার পর অন্তত ৬০০ বিমানবাহিনীর কর্মকর্তাকে হত্যা করা হয় বলে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

 

তিনি বলেন, পঁচাত্তরের পর থেকে ১৯৯৬ পর্যন্ত নানা ঘটনা ঘটে। আমরা আবার সরকারে আসার পর বিমান বাহিনীকে আবার নতুন করে গড়ে তোলার ব্যবস্থা গ্রহণ করি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অনেক দেশে যখন দুর্ঘটনা হয়, আমরা তাদের সহযোগীতা করি, আবার আমাদের দেশে যখন ঝড়, বন্যা বা দুঘর্টনা ঘটে তখন বিমানবাহিনীর সদস্য, সশস্ত্রবাহিনীর সদস্যরা জনগণের পাশে দাঁড়ায়, জনগণের সেবা করে, এটাই হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।  প্রধানমন্ত্রী বলেন, যেকোনো যুদ্ধে জয়ী হওয়ার জন্য জনগণের আস্থা-বিশ্বাস একান্তভাবে দরকার।

 

তাছাড়া আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই। সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, এই নীতি আমরা বিশ্বাস করি। তারপরেও দক্ষতার দিক থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে আমাদের সব ধরনের উৎকর্ষতা বজায় রেখে চলতে হবে, সেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে চলতে হবে। দেশমাতৃকার প্রতি এবং দেশের জনগণের প্রতি দায়িত্ববোধ থাকতে হবে। যেটা বঙ্গবন্ধু তার ভাষণে বলেছেন, দেশ ও দেশের জনগণের প্রতি দায়িত্ববোধ, এটা হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। সরকারপ্রধান জানান, বিমানবাহিনীতে নতুন করে বেশ কিছু বিমান সংযোজন করা হয়েছে। বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সুনাম বৃদ্ধি পাক এমন আশা ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

পুনরুত্থান/এসআর/মিজান/সোহান

Comments: