অর্ধেকে নেমেছে হিলি বাজারে সবজির দাম

এক সপ্তাহের ব‍্যবধানে অর্ধেকে নেমেছে দিনাজপুরের হিলি বাজারে সবজির দাম। কৃষকদের শীতকালীন সবজির উৎপাদন বেশি হয়েছে এবং বজারে সরবারহ বৃদ্ধি পেয়েছে, এই জন‍্যই দাম কমে গেছে। এমনটি বলছে সবজি ব‍্যবসায়ীরা। এদিকে দাম কমে যাওয়াতে স্বস্তি ফিরে এসেছে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষদের।সোমবার (২৩ নভেম্বর) সকালে হিলি সবজি বাজার ঘুরে জানা যায়,এক সপ্তাহ আগে প্রতিটি সবজির যা দাম ছিলো আজ তার চেয়ে অর্ধেক দামে নেমে এসেছ। ফুলকপির দাম ছিলো ৮০ টাকা আজ তা বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাক, বাঁধাকপির দাম ছিলো ৬০ টাকা তা এখন বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা কেজি দরে, মুলাই ছিলো ৪০ টাকা এখন মাত্র ১০ টাকা কেজি, বেগুনের দাম ছিলো ৮০ টাকা তা কমে এখন ৩০ টাকা, পটল ছিলো ৫০ টাকা আজ তা ২৫ টাকা,শিমের দাম ছিলো ১২০ টাকা তা কমে হয়েছে ৫০ টাকা, করলা ছিলো ৮০ টাকা এখন দাম ৬০, লাল শাকের আটি ছিলো ৫ টাকা এখন ৪ আটি বিক্রি হচ্ছে ১০ টাকা, শসা ছিলো ৬০ টাকা  এখন তা ৪০ টাকা, কাঁচামরিচের দাম ছিলো ১৬০ টাকা কেজি এখন বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা, প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকা দরে, আদা রসুনের দাম স্বাভাবিক রয়েছে। এদিকে এখনও নতুন আলু না উঠার কারণে আলুর দাম ঊর্ধ্বমুখী হয়ে আছে, আজ তা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকা কেজি দরে।হিলি বাজারে সবজি কিনতে আসা একজন রিকশায়ালা রব্বানীর সাথে কথা হয়,তিনি বলেন, আমরা খেটে খাওয়া মানুষ, তরকারির দাম বেশি হলে আমরা তা কিনতে পারি না। গত সপ্তাহে যে দাম ছিলো সবজির, তা আমার নাগালের বাহিরে। দাম বেশি হওয়ার জন্য ঠিক মত সবজি কিনতে পারতাম না। আজ তরকারি বাজারে এসে অনেক স্বস্তি পাচ্ছি।প্রতিটি সবজির দাম আমার স্বাধ‍্যের মধ‍্যেকথা হয় একজন সরকারি চাকুরী জীবি সোলায়মান আলীর সাথে তিনি বলেন, বাজারে প্রতিটি সবজির দাম কম দেখছি। কিছুদিন আগে অনেক দাম ছিলো বেশি।কম দামে পাওয়ায় সব কিছু বেশি করে কিনলাম।হিলি বাজারের সবজি ব‍্যবসায়ী মিঠু মিয়া বলেন, এক সপ্তাহ ধরে বেচা কিনা করতে অনেকটা শান্তি পাচ্ছি। সবজির দাম কমে গেছে। গ্রাম থেকে গৃহস্থরা সবজি নিয়ে আসছে। কম দামে পাচ্ছি, তাই কম দামে বিক্রি করছি। ক্রেতাদের সাথে এখন আর দর কষাকষি করতে হচ্ছে না।বিরামপুর থেকে আসা হিলি বাজার সবজি চাষি আকরাম হোসেনের সাথে কথা হয়, তিনি বলেন, আগর আলু লাগাতে পারিনি বর্ষার কারণে। নমলা আলু লাগিয়েছি, আলু এখনও উঠেনি। এবার শীত মৌসুমে আমি সব ধরনের সবজির চাষ করেছি। ক'দিন আগে সব সবজির দাম ভাল পেয়েছিলাম। ভাল ফলনের কারণে সব সবজির দাম কমে গেছে। আজ আমি ফুলকপি আর বাঁধাকপি নিয়ে এসে ছিলাম বাজারে, সবগুলো পাইকারি বাজারে দিলাম। দাম অনেক কম পেয়েছি, আগে অনেক লাভ করে ছিলাম, তাই সমস‍্যা নেই।

 

Comments: