পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হলেন যারা

পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, ৩টি সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১১ জন এবং ৮টি সাধারণ আসনে ২৫ জনসহ  মোট ৪০ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।

 

পটুয়াখালী জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে  জানা যায়,  চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন পত্র দাখিলকৃত ৪ জন প্রার্থী হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান জেলা পরিষদ প্রশাসক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ খলিলুর রহমান মোহন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে জেলা যুবলীগের সাবেক নেতা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এ্যাডভোকেট মোঃ হাফিজুর রহমান হাফিজ, স্বতন্ত্র প্রার্থী পটুয়াখালী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি (আওয়ামীলীগ থেকে অব্যাহতি প্রাপ্ত) বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবুল কালাম আজাদ (কালাম মৃধা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতা অ্যাডভোকেট মোঃ মাকসুদুর রহমান।

 

এ জেলায় সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে মোট প্রার্থী ১১ জন। ১ নং ওয়ার্ডে (সদর-মির্জাগঞ্জ- দুমকি) চারজন। তারা হলেন রহিমা আক্তার নিপা, নুরুন্নাহার শেলী, নাজমুন নাহার  শিরিন এবং মোসাঃ নাসিমা আক্তার। ২ নং ওয়ার্ডে (বাউফল-দশমিনা) চারজন। তারা হলেন পশারী রানী, মোসাঃ রুবিনা আক্তার, কামরুননাহার ও মিসেস ফাতেমা আলম এবং ৩ নং ওয়ার্ডে (গলাচিপা-রাঙ্গাবালি-কলাপাড়া) ৩ জন প্রার্থী হলেন- ইশরাত জাহান আসমা, মোসাঃ বিলকিস জাহান ও হোসনেয়ারা বেগম ইভা)।

 

সাধারন ৮ টি ওয়ার্ডে (৮টি উপজেলা) মনোনয়ন দাখিলকৃত ২৫ জনের মধ্যে ১ নং ওয়ার্ডে (সদর) ৪ জন-চিন্ময় বণিক, মোঃ জামাল হোসেন, এ কে এম মেহেদী ও মোঃ সালাউদ্দিন হীরা। ২ নং ওয়ার্ডে (দুমকি) ৪ জন হলেন- মোঃ আবুল বাসার, মোঃ জাকারিয়া কাওছার, মোঃ সিদ্দিকুর রহমান ও মোঃ দেলোয়ার হোসেন। ৩ নং ওয়ার্ডে (মির্জাগঞ্জ) ৩ জন- শামীম আহমেদ, আবদুল্লাহ আল জাবির ও মোঃ নেছারউদ্দিন, ৪ নং ওয়ার্ডে (বাউফল) ৩ জন হলেন-

 

মোঃ বশিরুল আলম, মোঃ জসীম উদ্দিন ফরাজী ও শাহজাহান সিরাজ, ৫ নং ওয়ার্ডে (দশমিনা) ২ জন মোঃ জাকির হোসেন ভুট্টো ও গাজী মোঃ মিজানুর রহমান মিজান, ৬ নং ওয়ার্ডে (গলাচিপা) ৩ জন হলেন মাঈনুল ইসলাম রনো, মোঃ শাহীন মিয়া ও মোঃ নিজাম উদ্দিন তালুকদার। ৭ নং ওয়ার্ডে (কলাপাড়া) ৩ জন হলেন মোঃ ফিরোজ শিকদার, মোঃ আসাদুজ্জামান শুভ ও এস এম মোশাররফ হোসেন এবং ৮ নং ওয়ার্ডে ( রাঙ্গাবালী উপজেলা) ৩ জন প্রার্থী হলেন- আব্দুল মালেক, আহম্মেদ হাওলাদার ও মোঃ মশিউর রহমান শিমুল।

 

১৮ সেপ্টম্বর প্রার্থী বাছাই হবে। এ জেলায় ৮ টি উপজেলা, ৫ টি পৌরসভা ও ৭৭টি ইউনিয়নে ১০৮৫ জন ভোটার রয়েছে বলে জেলা পরিষদ নির্বাচনে সহকারী  রিটার্নিং অফিসার সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা খান আবি শাহানুর খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

পুনরুত্থান /ফরিদ /এসপি

 

 

Comments: