বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই তিস্তার পানি, খুলে দেওয়া হয়েছে ৪৪ গেট

উজানের ঢলে আবারও বাড়তে শুরু করেছে তিস্তা নদীর পানি। এক সপ্তাহ ধরে পানি কমলেও আজ সকাল থেকে পানি বিপৎসীমার কাছাকাছি অবস্থান করছে।

 

বুধবার (২৯ জুন) সকাল ৯টায় নীলফামারী ও লালমনিরহাট জেলার সংযোগস্থলে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়া পয়েন্টে পানির প্রবাহ রেকর্ড করা হয় ৫২ দশমিক ৫৫ সেন্টিমিটার (যা বিপৎসীমার দশমিক ৫ সেন্টিমিটার নিচে)। পানির চাপ মোকাবিলায় ব্যারাজের ৪৪টি গেট খুলে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

Dhaka post

এর আগে গত ২১ জুন সন্ধ্যা ৬টায় ওই পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার ২০ সেন্টিমিটার ওপরে ছিল। তার আগের দিন ২০ জুন সর্বোচ্চ ৩১ সেন্টিমিটার ওপরে ওঠে। এতে ডিমলা উপজেলার পূর্ব ছাতনাই, খগাখড়িবাড়ি, গয়াবাড়ি, টেপাখড়িবাড়ি, খালিশাচাঁপানী, ঝুনাগাছ চাঁপানী এবং জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা, ডাউয়াবাড়ি, শৌলমারী ও কৈমারী এলাকার কয়েকটি গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়ে। ২২ জুন থেকে দফায় দফায় পানি কমতে শুরু করলে এসব গ্রামের সব বাড়িঘর থেকে পানি নেমে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

 

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আসফাউদ্দৌলা জানান, সকাল থেকে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমা ছুঁই ছুঁই করছে। এতে ব্যারাজ রক্ষায় ৪৪টি স্লুইসগেট খুলে দেওয়া হয়েছে। যেভাবে পানি বাড়ছে, তাতে যেকোনো সময় বিপৎসীমা ছাড়াতে পারে। পানি কমার সম্ভাবনা দেখছি না। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে।

 

পুনরুত্থান/সাকিব/এসআর

Comments: