মহারাষ্ট্রের মহানাটকের ক্লাইম্যাক্স, আস্থা ভোটে নির্ধারিত হবে উদ্ধবের ভাগ্য

ভারতের মহারাষ্ট্রের মহানাটক অবশেষে অন্তিম পরিণতির দিকে এগচ্ছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বসছে বিধানসভা। ওইদিনই বিকেলে বিধানসভায় আস্থা ভোট নিতে হবে মুখ‌্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে।

 

মঙ্গলবার রাতে রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপাল ভগৎ সিং কেশিয়ারির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ আস্থা ভোটের আরজি জানান। ফড়নবিশের সঙ্গে বৈঠকের পরই বিধানসভার সচিবকে চিঠি লিখে বৃহস্পতিবার বিশেষ অধিবেশন ডেকে বিকেল পাঁচটায় মুখ‌্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে আস্থা ভোটের নির্দেশ দেন রাজ্যপাল।

 

বস্তুত, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে একনাথ শিণ্ডের নেতৃত্বাধীন বিদ্রোহী সেনা বিধায়কদের স্বস্তি মিলতেই মহারাষ্ট্র বিকাশ অগাড়ি জোট সরকারকে চূড়ান্ত আঘাত হানার লক্ষ্যে পদক্ষেপ করেন বিজেপি নেতারা। মঙ্গলবার সকালে দিল্লি পৌঁছে যান রাজ্য বিধানসভার বিরোধী দলনেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-র সঙ্গে বৈঠকে চূড়ান্ত রণকৌশল ঠিক করে রাতে মুম্বই ফিরে এসে রাজভবনে যান।

 

বিজেপি ও শিণ্ডে শিবিরের দাবি, ৩৯ বিদ্রোহী সেনা বিধায়ক ছাড়া আরও ১০ নির্দল বিধায়কের সমর্থন তাদের দিকে চলে এসেছে। ফলে ২৮৭ আসনের বিধানসভায় এনডিএ জোটের ১১৪ জনের সঙ্গে আরও ৪৯ জন বিধায়ক যুক্ত হয়েছেন। উদ্ধবের জোটে সংখ‌্যা কমে দাঁড়িয়েছে ১২৪। উদ্ধব শিবিরের দাবি, গুয়াহাটি থেকে ফিরে ২০ সেনা বিধায়ক তাঁদের সঙ্গে যোগ দেবেন। উদ্ধব এদিন বিধায়কদের তাঁর সঙ্গে বসার ডাক দেন। শেষ পর্যন্ত আস্থা ভোটেই যবনিকা পড়তে চলেছে যাবতীয় জল্পনার। আপাতত সেদিকেই তাকিয়ে ওয়াকিবহাল মহল।

 

এদিকে এখনও গুয়াহাটিতেই রয়েছে একনাথ শিণ্ডে ও তাঁর অনুগামী ‘বিদ্রোহী’ বিধায়করা। তবে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, তাঁরা র‌্যাডিসন ব্লু হোটেল ছেড়ে দিয়েছেন। আপাতত তাঁদের গন্তব্য কামাখ্যা মন্দির। বুধবার দুপুরের মধ্যেই সেখানে যাওয়ার কথা রয়েছে শিণ্ডেদের।

 

পুনরুত্থান/এসআর/মিজান

Comments: