বাঙালির গর্বের আরেকটি নতুন সংযোজন পদ্মা সেতু: রওশন এরশাদ

পদ্মা সেতুকে দেশের আত্মমর্যাদার প্রতীক বলে উল্লেখ করেছেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ।  আজ শুক্রবার (২৪ জুন) তার একান্ত সহকারী সচিব মামুন হাসানের গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

 

পদ্মা সেতুর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়ন সাফল্যের মুকুটে যুক্ত হোক নতুন পালক, এমনই প্রত্যাশা বিরোধীদলীয় নেতার। রওশন এরশাদ বর্তমানে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে চিকিৎসাধীন। আগামী ২৭ জুন তার চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার কথা রয়েছে। জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন শেষে আগামী ৪ জুলাই রুটিন চেকআপের লক্ষ্যে আবার ব্যাংকক যাবেন রওশন।

 

রওশন এরশাদ মনে করেন, পদ্মা সেতু শুধু একটি অবকাঠামো নয়, এটি দেশের সক্ষমতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক।পদ্মা সেতুকে প্রত্যাশা ও প্রতিজ্ঞার মেলবন্ধন বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতু আজ বাস্তবে রূপ নিয়েছে। পদ্মা সেতু শুধু একটি অবকাঠামো নয়। এটি দেশের সক্ষমতা ও আত্মমর্যাদার প্রতীক। আত্মমর্যাদাসম্পন্ন বাঙালির গর্বের আরেকটি নতুন সংযোজন পদ্মা সেতু। প্রত্যাশা ও প্রতিজ্ঞার মেলবন্ধন পদ্মা সেতু।

 

‘বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশে, এত সমস্যা মোকাবিলা করে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। এ সেতু দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জন্য অর্থনৈতিক লাইফলাইন রূপে কাজ করবে। বাণিজ্য, আঞ্চলিক বাণিজ্য, দক্ষিণ এশিয়ার সংযোগ, শিল্পাঞ্চল গড়ে ওঠা, কৃষি সম্প্রসারণ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিসহ আর্থসামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখবে পদ্মা সেতু।’ বিরোধীদলীয় নেতা আরও বলেন, ‘বহু বিস্ময় ও রেকর্ডের জন্ম দেয়া সেতুটির মাধ্যমে দেশের অর্থনীতির চাকা ঘুরবে। ফলে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের জনগণ প্রত্যক্ষভাবে এর মাধ্যমে উপকৃত হবে আর পরোক্ষভাবে উপকৃত হবে দেশের মানুষ।’

 

পুনরুত্থান/আরিফা/এসআর/দয়া

Daily Punorutthan

Comments: