সাড়ে চার কোটি টাকা ভ্যাট ফাঁকি দিলো জনতাসহ ১৫ ব্যাংক

২০১৫-১৬ ও ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বিক্রি করা সরকারি বন্ডের বিপরীতে ১৫ ব্যাংকের মোট সাড়ে চার কোটি টাকার ভ্যাট অপরিশোধিত রয়েছে।

 

ভ্যাট ফাঁকি দেয়ায় ব্যাংকগুলোর ন্যূনতম ডিএমডি পদমর্যাদার কর্মকর্তাদের জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কার্যালয়ে আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) বিকেল ৩টায় উপস্থিত হতে হবে। এর আগে গত ১৬ জুন এলটিইউর ভ্যাট বিভাগের কমিশনার ওয়াহিদা রহমান চৌধুরী সই করা চিঠিতে প্রতিটি ব্যাংকের ন্যূনতম ডিএমডি পদমর্যাদার কর্মকর্তাদের আজ বিকেল ৩টায় উপস্থিত হওয়ার বিষয়টি জানানো হয়েছে। এনবিআরের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা চিঠির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

ব্যাংকগুলো হলো :

জনতা ব্যাংক লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড, অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড চাটার্ট ব্যাংক লিমিটেড, এইচএসবিসি ব্যাংক লিমিটেড, পূবালী ব্যাংক লিমিটেড, উত্তরা ব্যাংক লিমিটেড, ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, সাউথ ইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, দি প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড ও আরব বাংলাদেশ (এবি) ব্যাংক লিমিটেড। জানা গেছে, এনবিআরের বৃহৎ করদাতা ইউনিটের (এলটিইউ) নিজস্ব তদন্তে ব্যাংকগুলোর ভ্যাট ফাঁকি দেওয়ার বিষয়টি ওঠে আসে।

 

এরপর বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে চিঠি চালাচালির মাধ্যমে বকেয়া ভ্যাটের বিষয়ে নিশ্চিত হয় এনআরবি। এই কারণে সরকারি-বেসরকারি ১৫ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) বরাবর পাঠানো চিঠিতে ব্যাংকের প্রতিনিধি পাঠিয়ে শুনানিতে অংশগ্রহণের জন্য অনুরোধ করেছে ভ্যাট বিভাগ। তলবের চিঠি পাওয়া ব্যাংকগুলোর দাবি, হয়ত এলটিইউর ভ্যাট বিভাগের কাছে তথ্য-উপাত্তের ঘাটতি থাকায় বিষয়টি এভাবে দেখছে। প্রকৃত পক্ষে কোনো ভ্যাট বকেয়া নেই তাদের। ভ্যাট পরিশোধের চালান রয়েছে তাদের কাছে।

Comments: