LATEST
ঢাবির হল খোলা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত কাল আগামী প্রজন্মের টেকসই ভবিষ্যৎ নিশ্চিতে উন্নত দেশগুলোর ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী নারী মন্ত্রণালয় বাতিল করে 'পাপ ও পুণ্য' মন্ত্রণালয় গঠিত হচ্ছে আফগানিস্তানে মোদির জন্মদিনে ২ কোটির বেশি টিকা দেওয়ার রেকর্ড ইতালিতে সব কর্মজীবীদের জন্য কোভিড-১৯ 'গ্রিন পাস বাধ্যতামূলক উত্তরপ্রদেশে প্রবল বৃষ্টিপাতে ৩৮ জনের মৃত্যু নিরাপত্তা শঙ্কায় সফর বাতিল,পাকিস্তান ছাড়ছে কিউইরা জেমিকে অব্যাহতি, বাংলাদেশের নতুন কোচ অস্কার ৭১টি গোলাপ দিয়ে মোদিকে জন্ম‌দি‌নের শু‌ভেচ্ছা জানা‌লেন শেখ হা‌সিনা ফিনল্যান্ড পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

করোনায় ৯৮ শতাংশ মৃত্যু ঠেকাতে সক্ষম কোভিশিল্ড

Publish: 1 month ago ( 1174)

অনলাইন ডেস্ক

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা টিকা কোভিশিল্ড প্রাণঘাতী এ রোগের মৃত্যু ঝুঁকি ৯৮ শতাংশ কমাতে সক্ষম। এই টিকার ডোজ যারা সম্পূর্ণ করেছেন, তারা এ রোগের সংক্রমণ থেকেও ৯৩ শতাংশ সুরক্ষা ভোগ করেন।  ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন চিকিৎসা সেবা সংস্থা আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল সার্ভিসেস (এএফএমএস)- এর সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে বলে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতে কোভিশিল্ড টিকার ডোজ সম্পূর্ণ করা ১৫ লাখ ৯৫ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী ও সম্মুখসারির করোনাযোদ্ধাদের শারীরিক অবস্থার তথ্য বিশ্লেষণ করে এটি জানা গেছে।  চলতি বছর ১৬ জানুয়ারি থেকে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু করে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। টিকাদানের প্রথম পর্যায়ে স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশসহ সম্মুখসারির করোনাযোদ্ধাদের প্রাধান্য দেওয়া হয়েছিল।  এএফএমএসের গবেষণায় যে ১৫ লাখ ৯৫ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী ও সম্মুখসারির করোনাযোদ্ধাদের বেছে নেওয়া হয়েছিল, তারা সবাই টিকাদান কর্মসূচির প্রথম পর্যায়েই টিকার ডোজ সম্পূর্ণ করেছিলেন।  মঙ্গলবারের বিবৃতিতে সাম্প্রতিক এই গবেষণাকে করোনা টিকার কার্যকারিতা বিষয়ক বিশ্বের সবচেয়ে বড় গবেষণা বা বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধান দাবি করে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘এএফএমএসের গবেষণা অনুযায়ী, কোভিশিল্ড টিকার দুই ডোজ করোনায় মৃত্যুর ঝুঁকি কমায় ৯৮ শতাংশ এবং আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমায় ৯৩ শতাংশ। করোনা টিকার কার্যকারিতা বিষয়ে এটি সম্ভবত এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে বড় বৈজ্ঞানিক অনুসন্ধান।’  এএফএমএস এর মহাপরিচালক ভাইস অ্যাডমিরাল রজত দত্ত ভারতের বার্তাসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হওয়ার পর এই ১৫ লাখ ৯৫ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী ও সম্মুখ সারির যোদ্ধাদের কোভিশিল্ডের প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার সময় এবং টিকা নেওয়ার পর তাদের শারীরিক অবস্থা বিষয়ক গোয়েন্দা তথ্যাবলী খতিয়ে দেখে এই সিদ্ধান্তে এসেছে এএফএমএস।    তবে মঙ্গলবারের বিবৃতিতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় স্বীকার করেছে, বৃদ্ধ ও অপ্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে এই টিকার কার্যকারিতা কতখানি- সে বিষয়ে গবেষণায় যথেষ্ট মনযোগ দেওয়া হয়নি।  বিবৃতিতে আরও বলা হয়, টিকার দুই ডোজ সম্পূর্ণ করার পর এই ১৫ লাখ ৯৫ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী ও সম্মুখসারির করোনা যোদ্ধাদের মধ্যে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন মাত্র ৭ জন।

Comments: